২৯ এপ্রিল, ২০১৭

বর্তমানের ধর্ম বনাম ভবিষ্যতের ভার্চুয়াল রিয়ালিটি গেইম

লিখেছেন নরমপন্থী

শিষ্য: বিজ্ঞানের নতুন নতুন আবিষ্কারের কারণে যেভাবে সবকিছু যান্ত্রিক হয়ে যাচ্ছে, ভবিষ্যতে মানুষ অলস কিংবা বেকার হয়ে পড়বে। কারণ যন্ত্রই সবকিছু করে দেবে। মানুষ তখন কী করবে ? কীভাবে জীবনের অর্থ খুঁজে পাবে। জীবন কি অর্থহীন মনে হবে না? 

গুরু: কোনো কোনো বিষেশজ্ঞদের মতে, খেয়েদেয়ে কোনো কাজ থাকবে না, তাই মানুষ হয়তো ভার্চুয়াল রিয়ালিটি গেইমগুলোর মধ্যে মজে থাকবে।


শিষ্য: তার মানে মানুষের জীবন এবং মানসিকতা পাল্টে যাবে?

গুরু: না, মানুষ আদিম কাল থেকে একই রকম গল্পে মজে আছে, এটা তো নতুন কিছু নয়। মানুষ এতদিন যাবৎ ধর্ম নামক ভার্চুয়াল রিয়ালিটি গেইমের মাধ্যমে জীবনের অর্থ খুঁজে আসছে। যেমন আমি এক ওয়াক্ত নামাজ আদায় করলাম কিংবা কয়েকটা রোজা রাখলাম, কয়েক নেকি পুরস্কার হিসেবে পেলাম। কম্পিউটার গেইমের বা ভার্চুয়াল রিয়ালিটি গেইমের মধ্যেও কোনো একটি কাজে সফল হলে যেমন পয়েন্ট পাওয়া যায় - তেমনি পয়েন্ট যুক্ত হতে থাকবে। তবে অতীত কালে কিংবা বর্তমানে ধর্মের নামে যুগ যুগ ধরে "পয়েন্ট" পাবার কাজ করে আসছে কল্পনার ভিত্তিতে - ভবিষ্যতে ভার্চুয়াল রিয়ালিটি গেইমের মধ্যে তা হয়তো করবে যন্ত্রের ভিত্তিতে।

(Yuval Noah Harari-র ধারণা থেকে অনুপ্রাণিত)