৫ এপ্রিল, ২০১৭

নিমো হুজুরের খুতবা - ৩৮

লিখেছেন নীল নিমো

আজকে বিকালে অফিসের কাজ শেষে বাসায় ফিরছিলাম। রাস্তায় এক নাস্তিকের সাথে দেখা। নাস্তিক দেখা মাত্রই আমার মেজাজ খারাপ হয়ে যায়। কারণ এরা উল্টাপাল্টা প্রশ্ন করে আমার ঈমানদণ্ডকে ন্যাতায়ে দেয়।

যাই হোক, নাস্তিক আমাকে দেখে বলল:
- আরে, মুফতি নীল ভাই যে, কী খবর? কেমন আছেন? আপনি তো অনেক জ্ঞানী মানুষ, আপনাকে একটা প্রশ্ন করার ছিল।

আমি বললাম:
- করেন প্রশ্ন, দেখি উত্তর দিতে পারি কি না।

নাস্তিক আমাকে প্রশ্ন করল:
- মানব সভ্যতার ইতিহাসে এমন একজন নিষ্ঠুর, সন্ত্রাসী, ডিকটেটর বা একনায়তন্ত্রবাদী শাসকের নাম বলুন তো দেখি, যার শাসনকালে আতংকগ্রস্ত স্বামীরা নিজেদের বউদের স্বেচ্ছায় শাসকের হাতে তুলে দিয়ে বলত, দয়া করে আমার বউকে বিয়ে করুন।

আমি উত্তর দিলাম:
- লেজে হোমো এরশাদ।

নাস্তিক বলল:
- হয় নাই।

আমি উত্তর দিলাম:
- তাহলে হিটলার?

নাস্তিক বলল:
- হয় নাই।

আমি উত্তর দিলাম:
- তাহলে জোসেফ স্টালিন, মাও কিংবা মুসেলিনি?

নাস্তিক বলল:
- হয় নাই।

আমি বিরক্ত হয়ে উত্তর দিলাম:
- আমি জানি না, আপনি বলে দেন।

নাস্তিক উত্তর দিল:
- আল্লাহর নবী হজরত মুহাম্মদ (সঃ) এর কুদৃষ্টি পড়েছিল তার পালক ছেলে যায়েদের স্ত্রী জয়নবের উপর। মুহাম্মদ আরব দেশে এমন একটা শাসনব্যবস্থা প্রতিষ্ঠা করেছিল যে, যায়েদ ভয়ে আতংকগ্রস্ত হয়ে তার নিজের স্ত্রী জয়নবকে মুহাম্মদের হাতে তুলে দিয়ে জয়নবকে বিবাহ করতে মুহাম্মদকে অনুরোধ করেছিল।

আমি আস্তাগফিরুল্লাহ, নাউযুবিল্লাহ বলে ওযু করতে দৌড় দিলাম।