১ ডিসেম্বর, ২০১৬

নিমো হুজুরের খুতবা - ১০

লিখেছেন নীল নিমো

উহহহহ.... মুরিদদের যন্ত্রণায় শান্তিমত ঘুমাতে পারছি না। ভোর ৪ টার সময় ঈমানদার মুরিদ আমাকে জাগিয়ে বলিল, "হুজুর, মায়ানমারের রোহিঙ্গা মুসলমানদেরকে মেরে ফেলা হচ্ছে। কিছু একটা করেন। আপনার তো অনেক শক্তিশালী লিংক আছে। একটু ফোন দেন।"

আমি বলিলাম, "ওহে আল্লাহর বান্দা, রাসুলের উম্মত। তুই কাকে ফোন করতে বলছিস?"

ঈমানদার মুরিদ বলিল, "আপনার দূরসম্পর্কের আত্মীয় শেখ হাসিনা, আপনার গার্লফেন্ডের বান্ধবী হল ডোনাল্ড ট্রাম্পের বেড পার্টনার। এদের সবাইকে ফোন দেন। দেখেন, কোনোভাবে রোহিঙ্গা মুসলমানদেরকে বাঁচানো যায় কি না?"

আমি বলিলাম, "আস্তাগফিরুল্লাহ। ওহে আল্লাহর বান্দা, তুই কি কোরান-হাদিসকে অস্বীকার করতে চাস? নবীজির বিদায় হজ্জের ভাষণকে ভুলে গেছিস। তুই কি ভুলে গেছিল আল্লাহপাক মুসলমানদেরকে কেন এই দুনিয়াতে পাঠিয়েছেন?"

ঈমানদ্বার মুরিদ বলিল, "হুজুর, একটু খোলাসা করে বলেন।"

আমি বলিলাম, "কোরান-হাদিসে শেখ হাসিনা কিংবা ডোনাল্ড ট্রাম্পের কথা উল্লেখ করা নাই। কোরান-হাদিসে আবাবিল পাখির কথা উল্লেখ করা আছে। আবাবিল পাখি কাবা শরীফকে রক্ষা করেছিল শত্রুদের হাত থেকে। নবীজির বিদায় হজ্জের ভাষণে বলেছেন, যতদিন মুসলমানরা কোরান-হাদিসকে আঁকড়ে ধরে থাকবে, ততদিন মুসলমানরা পথভ্রষ্ট হবে না। তাই রোহিঙ্গাদের উচিত হবে শেখ হাসিনা কিংবা ডোনাল্ড ট্রাম্পের সাহায্যের আশা বাদ দিয়ে আল্লাহপাকের আবাবিল পাখির জন্য অপেক্ষা করা।"

ঈমানদ্বার মুরিদ বলিল, "হুজুর, এইটা সঠিক না। রোহিঙ্গা মুসলমানরা মারা যাচ্ছে, আমরা কি সাহায্য করব না? কাল হাশরের ময়দানে আল্লাহপাককে আমরা কী উত্তর দিব?"

আমি বলিলাম, "দুই দিনের এই দুনিয়া কিছুই না। অনন্তকালের আসল দুনিয়া হল আখেরাত। দুইদিনের এই দুনিয়াতে আল্লাহপাক রোহিঙ্গাদের হত্যা করে তাদের ঈমানের পরীক্ষা নিচ্ছেন। আল্লাহপাকের পরীক্ষাকে বাধা দেওয়া ঠিক হবে না। নাস্তিকরা এই দুইদিনের দুনিয়াতে আমোদ-ফুর্তি করে। নাস্তিকরা দুইদিনের এই দুনিয়া নিয়ে বেঁচে থাকতে চায়। আমরা নাস্তিক না। তাই আমাদের উচিত হবে দুইদিনের এই দুনিয়ার প্রতি লোভ না করে রোহিঙ্গাদের হত্যাকাণ্ড তথা আল্লাহপাকের পরীক্ষাকে সমর্থন করা। এতে হাশরের ময়দানে আল্লাহপাক খুশি হবেন। একমাত্র নাস্তিক রোহিঙ্গারা দুইদিনের এই দুনিয়ার প্রতি লোভ করে বেঁচে থাকার আসায় বাংলাদেশে পালিয়ে আসছে। বাংলাদেশে নাস্তিকদের কোনো ঠাঁই নাই। তাই বাংলাদেশ সরকার নাস্তিক রোহিঙ্গাদেরকে বাংলাদেশে ঢুকতে দিচ্ছে না।"

ঈমানদার মুরিদ বলিল, "হুজুর সঠিক কথা বলেছেন। আফসুস, আল্লাহপাক যদি রোহিঙ্গাদের মত বাংলাদেশ মুসলমানদের এমন পরীক্ষা নিত, তাহলে এতদিন আমরা জান্নতে গিয়ে ৭২... হুজুর, আমি এখন ফযরের নামাজ পড়তে গেলাম।"

মুর্খ মানুষের ইবাদত অপেক্ষা জ্ঞানী মানুষের ঘুম উত্তম। তাই আমি মুচকি হাসি দিয়ে যজরের নামাজ না পড়ে ঘুমাতে চলে গেলাম।