১৮ আগস্ট, ২০১৬

বেহেশতে হুরের সংখ্যা

বেহেশতবাসী প্রত্যেক মুসলিম পুরুষের ভাগে ৭২টি করে হুর পাওনা, সেটা তো সকলেরই জানা। তা না হয় বুঝলাম, কিন্তু বেহেশতে হুরের সর্বমোট সংখ্যা কতো? এর উত্তর পাওয়া গেল হামাসের আইন সংক্রান্ত মুখপাত্র Ahmad Bahr-এর কাছে। হামাস-চালিত Al-Aqsa টিভিতে গত ২০১০ সালের ৫ সেপ্টেম্বর তিনি জানিয়েছেন: 
ভালো কইরা শুনেন, ভাইসব! বেহেশতে আছে ৫০০ টা গেট। প্রত্যেক গেটের পাশে খাড়ায়া আছে ৫০০০ কৃষ্ণলোচনা হুর। ভাইসব, ৫০০ গুণ ৫০০০ = ২.৫ মিলিয়ন।
অর্থাৎ হুরের সংখ্যা মাত্র ২৫ লাখ! এই সংখ্যাকে ৭২ দিয়ে ভাগ করলে পাওয়া যাচ্ছে ৩৪৭২২.২২...; এর মানে, মাত্র চৌত্রিশ হাজার সাতশো বাইশজনকে ৭২টি করে হুর দেয়া যাবে।


পৃথিবীতে বর্তমানে ১.৬ বিলিয়ন মুসলমান। ধরা যাক, এদের মধ্যে পুরুষের সংখ্যা অর্ধেক অর্থাৎ ০.৮ বিলিয়ন। হিসেব কষে বোঝা যাচ্ছে, এই বিপুল সংখ্যক মুসলিম পুরুষদের মধ্যে বেহেশতে যাবে সর্বোচ্চ ৩৪৭২২ জন। এমনকি আল্যার দেয়া প্রতিশ্রুতি ভঙ্গ করে পুরুষপ্রতি একটি করে হুর দিলেও মাত্র ২৫ লক্ষ মমিনের স্থান হবে বেহেশতে।

এ তো গেল শুধু বর্তমানের মুসলমানদের কথা। গত ১৪০০ বছরে আরও কতো মুসলমান ছিলো, অনাগত ভবিষ্যতে আরও কতো আসবে! এদের সবাইকে হিসেবে আনলে ব্যাপারটা কেমন হতাশাব্যঞ্জক হয়ে পড়ছে না? হুরপ্রত্যাশীরা একটু ভেবে দেখবেন কি?

নাকি হুরগুলো বারবনিতাদের মতো পালাক্রমে বহু পুরুষের শয্যাসঙ্গী হবে? কেউ কি বুঝিয়ে বলতে পারবেন?