১৮ আগস্ট, ২০১৬

সেক্যুলার শিক্ষা বনাম ধর্মীয় শিক্ষা

লিখেছেন পল্লবী বিশ্বাস

ব্রাজিলের অলিম্পিকে মাত্র কয়েক দিনের ব্যবধানে দু'টি অবাক করা ঘটনার সাক্ষী হয়ে রইল গোটা দুনিয়া। 

গত পরশু ৫০০০ মিটার দৌড়ে নিউজিল্যান্ডের Nikki Hamblin ও আমেরিকার Abbey D’Agostino-র পায়ে পা জড়িয়ে গেলে উভয়েই পড়ে যান। এরপরে Abbey D’Agostino  প্রথমে উঠে দাঁড়িয়ে Nikki Hamblin-কে উঠে দাঁড়াতে সাহায্য করেন। তারপর দু'জনেই দৌড়তে শুরু করেন,  কিন্তু কিছুক্ষণ পর Abbey D’Agostino প্রবল যন্ত্রণাকাতর অবস্থায় আবার ট্র্যাকে পড়ে গেলে Nikki Hamblin সেটা দেখে নিজের দৌড় থামিয়ে তাঁকে আবার দাঁড় করান এবং পরে তাঁরা দুজনেই দৌড়টি শেষ করেন। এটাই একজন খেলোয়াড়ের সাথে আর এক খেলোয়াড়ের খেলোয়াড়সুলভ ও মানবিক মানসিকতা।


এর কয়েকদিন আগে জুডোতে মিশরের Islam El Shehaby তার প্রতিদ্বন্দ্বী ইজরায়েলের Or Sasson-এর কাছে ১.৫ মিনিটের মধ্যে হেরে যান। খেলা শেষে তিনি বিজয়ী প্রতিদ্বন্দ‌্বীর সাথে হাত মেলাতে অস্বীকার করেন। কারণ হিসেবে Islam El Shehaby জানান, তিনি মুসলমান, একজন ইহুদির (কাফের) সাথে হাত মেলাবেন না। 


না, এখানে অবাক হওয়ার কিছু নেই। এটাই কিন্তু আরবীয় সংস্কৃতি, ইসলামী শিক্ষা। যে কোনো অমুসলমান বা কাফের হত্যার যোগ্য। যাদের হত্যা করা যায়, তাদের জন্য কোনো রকম সৌজন্য বা ভ্রাতৃত্ববোধ দেখানো যায় না। Islam El Shehaby তাঁর ধর্মীয় যুক্তিতে ঠিক আছেন, কিন্তু তিনি ভুলে গেছেন, তাঁর আরবীয় পথপ্রদর্শক যে কোনো ধরনের খেলাও কিন্তু নিষিদ্ধ করে গেছেন!