১৫ আগস্ট, ২০১৬

ধর্মের চিড়িয়াখানায় - ৯

লিখেছেন ধর্মহীন জিরাফ

৪১.
নাস্তিকতা ফ্যাশন হয়নি। 
ফ্যাশন হয়ে দাঁড়িয়েছে, "নাস্তিকতা এখন একটা ফ্যাশনে পরিণত হয়েছে" কথাটা বলা।
মুক্তচিন্তার, নাস্তিকতার প্রসার ঘটতে দেখলে কিছু লোক এরকম কথা বলে।

৪২.
ধর্মগ্রন্থগুলো সবচে' আগ্রহ নিয়ে পড়বে ভবিষ্যতের মানুষেরা।
কৌতুকের বই হিসেবে।

৪৩.
ধর্মজীবীরা সাধারণ মানুষের মাঝে ধর্মের মোড়কে ধর্মান্ধতা ঢুকিয়ে দিয়ে ধর্মান্ধ করে তোলে। আর রাজনীতিজীবীরা নিজেদের এবং ধর্মজীবীদের স্বার্থে সেই ধর্মান্ধতাকে ও ধর্মান্ধ মানুষগুলোকে ব্যবহার করে।
তাই ধর্মান্ধতার বিরুদ্ধে কথা বললে প্রথম বাধাটা এদের কাছ থেকেই আসে।

৪৪.
কেউ যদি নিজের প্রশংসা করার জন্য ১০ টা নয়, ২০ টা নয়, একেবারে ৯৮ টা নাম দেয় এবং সেই নামগুলো ধরে তাকে ডাকার জন্য নিয়ন্ত্রণে-থাকা লোকদের আদেশ দেয়, তাকে আপনার কী মনে হবে?
এই সুবিশাল বিশ্বব্রহ্মান্ডের সৃষ্টিকর্তা যিনি, তিনি এরকম ছোট মানসিকতার পরিচয় দেবেন?
আমি বিশ্বাস করিনা।

৪৫.
মুহম্মদ চোদ্দশ বছর আগেই অনানুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা দিয়েছিলেন একটা মস্তিষ্কবিহীন মানব সম্প্রদায় তৈরির।
যেটা তৈরির প্রক্রিয়া এই একবিংশ শতাব্দীতেও বেশ ভালোভাবেই এগোচ্ছে এই উপমহাদেশে।
সম্ভবত, জোকার নায়েকই এখানে সবচে' ভালো প্রভাবক হিসেবে কাজ করেছে।