২৭ ফেব্রুয়ারী, ২০১৬

এসো, কোরান তিলাওয়াত করি - ০১

লিখেছেন ফাতেমা দেবী (সাঃ)

১.
আর তার নিকট গুপ্ত তত্ত্বের চাবি, তা তিনি ছাড়া আর কেউই জানে না। যা কিছু জলে ও স্থলে আছে তিনি তার সবই জানেন এবং গাছের একটি পাতাও তার অজান্তে পড়ে না, এবং ভূগর্ভস্থ অন্ধকারের মধ্যে এমন কিছু নাই, সরস ও নীরস কোনো কিছু নাই যা এই কেতাবে নাই। - সুরা আনয়াম, আয়াত ৫৯ (৬:৫৯)

কিন্তু ভাইরাস, ব্যাকটেরিয়া, ডাইনোসর, কম্পিউটার, টিভি, মোবাইল, এক্সরে মেশিন, এরোপ্লেন ইত্যাদি জিনিসের নাম-গন্ধও এই কেতাবে পেলাম না। আল্লা কি এই কেতাবে মিথ্যা বলেছেন? মমিনরা আওয়াজ দেন।

২.
হে মমিনগণ, যদি প্রকৃত মমিন হয়ে থাকো তবে আল্লাকে ভয় করো এবং সুদী কারবার ত্যাগ করো। - সুরা বাকারা, আয়াত ২৭৮ (২:২৭৮)

আল্লা বলেছেন, যে-মমিন সুদী কারবারের সাথে জড়িত থাকবে, সে প্রকৃত মমিন নয়। কিন্তু হায়! আজকাল মমিনরা কেউই আল্লাকে পাত্তাটাত্তা দেয় না। মমিনরা ব্যাংকে অ্যাকাউন্ট করে। সুদ নেয় ও দেয়। ব্যাংক হলো সুদের কারবার। ব্যাংক থেকে সুদে ঋণ নিয়ে বাড়ি বানিয়ে সে-বাড়িতে বাস করে বা ভাড়া দিয়ে টাকা রোজগার ক'রে তাতে জীবিকা নির্বাহ করে। মমিন আপাদমস্তক সুদের ভেতর নিমজ্জিত থাকে সুদের বাড়িতে। মমিন ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করে। ক্রেডিট কার্ডের ব্যবসা হলো পুরাই সুদের ব্যবসা। মমিন ক্রেডিট কার্ড ও ব্যাংক থেকে সুদে ঋণ নিয়ে ব্যবসা-বাণিজ্য ক'রে জীবিকা নির্বাহ করে। মমিন পুরাই আপাদমস্তক সুদে নিমজ্জিত। আল্লাপাকরে মমিনরা এক্কেরে গোনার মধ্যেই ধরে না। পাত্তাই দেয় না। আল্লা কী কইলেন, না কইলেন, তাতে তাদের কিছুই যায় আসে না। অথচ নবীজি ও তার আমলের মমিনরা, মানে নবীজির ছাহাবীরা কেউ কি এইরকম নকল মমিন আছিলেন? তারা কি সুদের কারবার করতেন? তারা কি ক্রেডিট কার্ড দিয়া খেজুর, দাসী, তলোয়ার, মেছওয়াক ইত্যাকার বস্তু ও ব্যক্তি ক্রয় করতেন? তার কি ব্যাংক থেকে সুদে ঋণ নিয়ে খেজুরপাতা নিয়ে দালান বানায়ে বাস করতেন? ক্রেডিট কার্ডের সুদের টাকায় উট, দুম্বা, মেষ ইত্যাদি ক্রয় করতেন? আজকালকার মমিনরা কেন আল্লাকে এত অপমান করে? কেন আল্লাকে ভয় করে না, তিনি ভয় পেতে বলার পরেও? তাদের উদ্দেশ্য কী?

৩.
বস্তুত যারা কাফের, তুমি ওদেরকে ভয় দেখাও বা না দেখাও, একই কথা ওরা ঈমান আনবে না। আল্লা ওদের হৃদয়, চোখ ও কানে সীল মোহর মেরে দিয়েছেন। ওদের জন্য আছে কঠিন শাস্তি। - সুরা বাকারা, আয়াত ৬-৭ (২:৬-৭)

এই আয়াতে আল্লা নিজে স্বীকারোক্তি দিয়েছেন, কাফেরদের হৃদয়, চোখ ও কানে আল্লা নিজেই সীল মোহর মেরে দিয়েছেন। আর এ জন্যই কাফেররা ঈমান আনবে না। এবং এজন্যই কাফেরদের জন্য রয়েছে কঠিন শাস্তি।

আল্লা সর্বশক্তিমান। সর্বশক্তিমান আল্লার মেরে দেওয়া সীল মোহর তো তার সৃষ্টি কাফেরদের পক্ষে সরানো অসম্ভব। তাহলে ঈমান না আনার দোষটা কার? কঠিন শাস্তি কার প্রাপ্য?

ভয় দেখালেও কাফেররা ঈমান আনবে না জেনেও আল্লা পুরো কোরান শরীফ জুড়ে কাফেরদের ভয় ভীতি দেখিয়ে গেলেন কেন?