৯ ডিসেম্বর, ২০১৫

ইসলামপোন্দন কেন আমার প্রাপ্য ও ন্যায্য অধিকার

লিখেছেন সুবহ মহাপাতক

অনেক চুশীলরে বলতে শোনা যায়, "আপনি নাস্তিক হৈছেন, ঠিকাছে। তাই বলে ইসলামকে কটাক্ষ করতে হবে কেন বাপু? আপনার অবিশ্বাস নিয়ে আপনি চুপ করে থাকুন। ইসলাম তো আপনাকে ঘাঁটাচ্ছে না। ইসলাম নিয়ে কটাক্ষ করে কোনো নাস্তিক মারা গেলে সেটা ঐ নাস্তিকেরই দোষ।"

এরকম চুশীলদের কানের নিচ পাশটা গরম করে দিতে ইচ্ছে করে। কে বলেছে আপনারে, ইসলাম আমাকে ঘাঁটাচ্ছে না?

আমার আব্বা মুমিন বান্দা। পাঁচওয়াক্ত নামাজ জামাতের সহিত আদায় করেন। এই তাঁর জ্বালায় বাড়িতে টেকা দায়! সারাদিন নামাজ পড়, কোরান পড়, দোয়া পড়। একটু শান্তিমতো চোখভরে ঘুমানোরও উপায় নেই। ফজরের নামাজের মতো বিরক্তিকর একটা উপাদান যেহেতু ইসলামে ফরজ, বাধ্য হয়ে আরামের ঘুম হারাম করে, মূল্যবান সময় নষ্ট করে, পরীক্ষার পড়াশোনা বাদ দিয়ে আমাকে মসজিদে নিয়মিত পুটু ডলে আসতে হয়। অন্যথায় বাড়িতে ভাত বন্ধ।

আমার আব্বা এরকম কেন? তিনি মুসলমান আর ঈমানদার বলে। তিনি মুসলমান আর ঈমানদার কেন? কোরান-হাদিস মানেন বলে। কোরান-হাদিস মানেন কেন? এগুলা ইসলামের কিতাব বলে।

এই ইসলাম আমার আব্বার মাথাটা তো নষ্ট করলোই, সাথে আমারেও স্বস্তিতে থাকতে দেয় না। আব্বার আর আমার এ দুর্গতির জন্য দায়ী কে?

ছোটবেলায় আমার খত্‍না করাতে যাইয়া আমার ডাণ্ডার আগা এবড়ুখেবড়ু কৈরা ফালাইছে। আমি বড় এবং বোঝার বয়সে হলে কখনো স্বেচ্ছায় খত্‍না করাতাম না। একরকম জোর করেই আমার একটা গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গকে শ্রী-হীন করা হয়েছে। আমাকে খত্‍না করা হয়েছে কেন? এটা নবীর আদেশ এবং ইসলামের বিধান বলে। এখন আমার এ বিশ্রী অঙ্গ দেখে যদি বাসর রাতেই বউ পালায়, এর দায় কে নেবে? কোন অধিকারে ইসলাম আমার নুনু কাটে, প্রকৃতি প্রদত্ত জিনিসকে বিকৃত করে দেয়? এটা কী আমার উপর চালানো ইসলামের অমানবিকতা নয়?

ইসলাম আমাকে ধর্ম নির্বাচন করার কোনো সুযোগ দেয়নি। মুসলিম পরিবারে জন্মেছি বলেই আমি মুসলিম। বুদ্ধি হবার পর আমাকে ধর্ম নির্বাচন করতে বলা হলে আমি কখনোই ইসলাম নির্বাচন করতাম না। অথচ ইসলাম থেকে বেরিয়ে গেলে শাস্তি হলো মৃত্যুদণ্ড। এখন আমি ধর্ম থেকে বেরোলেই আমাকে কতল করা হবে। আমার কোনো নিরাপত্তা নেই। আমাকে হত্যা করা হবে কেন? ইসলামের আইন বলে। আমার এ অনিরাপত্তার দায় কার?

কোরানে বলা হয়েছে, "যারা ধর্ম বদলায়, তাদেরকে হত্যা করো।" এর মানে - যারা ইসলাম থেকে অন্য কোনো ধর্মে যেতে চাইবে বা ধর্মহীন হতে চাইবে, তাদের নিয়তি মৃত্যু। অথচ যারা অন্য ধর্ম থেকে ইসলামে প্রবেশ করে, তখন ইসলাম তাদের নিরাপত্তার ঘোষণা দেয়। তখন আরো ফলাও করে প্রচার করা হয়, কোন সেলেব্রেটি কাফের ধর্ম ছেড়ে ইসলামে শায়াতলে এসে সান্দাইছে! এটা কী ধর্ম বদলানো নয়? তাদেরকে কেন হত্যা করা হবে না? আর ইসলাম-গ্রহণকারীদের কতল করা না হলে ইসলাম-ত্যাগকারীদের কেন কতল করা হয়? এ ছাগলামির দায় কার?

....এভাবে হাজারটা উদাহরণ দেয়া যাবে। এখনো যদি কেউ দাবি করে, ইসলাম আমাকে ঘাঁটাচ্ছে না, আমাকে আমার স্বাধীনতা দিয়েছে, তবে এটা কত বড় আবালামি, চিন্তা করেন।

আর যেহেতু ইসলাম আমাকে সারাজীবন জ্বালিয়েছে, একবিন্দু শান্তি আর স্বস্তি দেয়নি, তাহলে ইসলামের বিরুদ্ধে খানিকটা প্রতিশোধ নেয়াটা কেন আমার অধিকার হবে না?