২ আগস্ট, ২০১৫

ইসলামের মর্যাদা রক্ষার ব্রত

লিখেছেন নাস্তিক দস্যু

ইসলাম শান্তির ধর্ম। একমাত্র ইসলামই নারীকে দিয়েছে সর্বোচ্চ অধিকার। ধর্ষণ করার পরে উপরি হিসেবে নারীকে দোররা মারার মত শান্তির ফায়সালা কেবল ইসলামই দিয়েছে। 

ইসলাম শান্তির ধর্ম। একমাত্র ইসলামেই আপনি একসাথে চারটা বিয়ে করতে পারবেন। মেয়েদের জন্য এই অফার প্রযোজ্য নয়। কারণ মেয়েদের ঈমান নেই (বিশ্বাস না হলে মেয়েরা কাপড়ের ভেতর ঈমানদণ্ড খুজে দেখুন)। 

ইসলাম শান্তির ধর্ম। কাফের নাস্তিক খুন করার পরে খুনিরা কতই না শান্তিতে এবং নিশ্চিন্তে থাকতে পারে! তা না দেখলে আপনি বুঝতেই পারবেন না যে, ইসলাম কতটা শান্তির ধর্ম। 

ইসলাম শান্তির ধর্ম। ইসলাম শান্তিমতই থাকতে চায়। কিন্তু কিছু অসাধু কার্টুনিস্ট অশান্তি লাগানোর জন্য শান্তির ধর্ম ইসলামের শান্তিপ্রিয় নবীর ছবি আঁকে। তাই ইসলামের অনুসারীরা শান্তি নিশ্চিত করার জন্য শান্তিপ্রিয়ভাবে জিহাদের মাধ্যমে ওই কার্টুনিস্টদের মেরে ফেলে। বাহ্‌! কী শান্তি!  কী শান্তি! চিন্তা করে দেখুন, ইসলাম কতটা শান্তির ধর্ম। 

আরো আছে। কোরান হাদিসের বাংলা অনুবাদ পড়ুন। দেখবেন, আয়াতগুলো কেমন শান্তিতে পরিপূর্ণ!

কিন্তু নাস্তিকরা লেগে রয়েছে ইসলামের বদনাম রটাতে। তারা ইসলামের কুৎসা রটনা করেই চলেছে। না! না! এ হতে পারে না। আমাদেরকে ইসলামের মর্যাদা রক্ষা করতেই হবে। দরকার হলে ফোঁড়ার পুঁজ দিয়ে, পাছার গু দিয়ে, ছনুর মাল দিয়ে, এমনকি বুকের রক্ত দিয়ে হলেও ইসলামের মর্যাদা রক্ষা করতে হবে।

[বিশিষ্ট আলেমে রাইত আল্ল্যাবাপ জনাব হযরত মাওলানা হাগুনগরী-র বয়ান হতে ঈষৎ সংক্ষেপিত]