১৯ আগস্ট, ২০১৫

তথ্যের ভারে, যুক্তির ধারে ধরাশায়ী ধর্ম

গত ছয় বছরে এই বিতর্কটি আমি দেখেছি অনেকবার। এই পোস্টটি রেডি করতে গিয়ে আবারও দেখে নিলাম প্রিয় অংশগুলো।

২০০৯ সালের ৭ নভেম্বরে বিবিসি ওয়ার্ল্ড নিউজ চ্যানেলে প্রচারিত জনপ্রিয় অনুষ্ঠান Intelligence Squared Debate-এর বিষয় ছিলো – The Catholic Church is a force for good in the world.

বিতর্ক শুরুর আগে ভোট নেয়া হয়েছিল উপস্থিত দর্শকদের ভেতরে। বিষয়টির সপক্ষে অর্থাৎ ক্যাথলিক চার্চকে শুভ শক্তি মনে করে ভোট দিয়েছিল ৬৭৮ জন, বিপক্ষে – ১১০২, অনির্ধারিত – ৩৪৬। 

চার্চের পক্ষে বক্তব্য রাখেন চার্চবিশপ John Onaiyekan এবং সংসদ সদস্যা Anne Widdecombe. বিপক্ষের বক্তারা ছিলেন সাংবাদিক, সমালোচক, লেখক ক্রিস্টোফার হিচেন্স এবং লেখক, অভিনেতা ও নাট্যকার স্টিফেন ফ্রাই।

বিপক্ষের বেয়াদব দুই ধর্মবিদ্বেষী তাঁদের বক্তব্যে গুচ্ছের তথ্য-প্রমাণ-যুক্তি-অভিযোগ দাঁড় করিয়ে প্রতিপক্ষকে নির্দয়ভাবে কোণঠাসা করে ফেলেন। দর্শকদের মতামতের ওপরে তা প্রবল প্রভাব ফেলে।

ফলে বিতর্কের শেষে আবার নেয়া ভোটের ফলাফল হয় চার্চপক্ষীয়দের জন্য ভয়াবহ হতাশাব্যঞ্জক। চার্চের সপক্ষে – ২৬৮ (মাইনাস ৪১০), বিপক্ষে – ১৮৭৬ (প্লাস ৭৭৪), অনির্ধারিত – ৩৪।

প্রশ্নোত্তর পর্বসহ বিতর্কটি ছিলো দু'ঘণ্টা দীর্ঘ। কিন্তু সেটাকে কাটছাঁট করে বিবিসি দেখিয়েছিল এক ঘণ্টা। নিচে এমবেড করা হলো অকর্তিত ভার্শন। সত্যি বলতে, দেখার সময় চার্চবাদী দু'জনের দুর্বল ও ত্যানা-প্যাঁচানো বক্তব্য বিরক্তিকর ঠেকলে স্কিপ করে যাওয়াটাই উচিত হবে।

আমার দেখা অন্যতম শ্রেষ্ঠ বিতর্ক।

ভিডিও লিংক: https://youtu.be/LrIHw0fZNOA

(১১.১১.০৯ তারিখে প্রকাশিত)