১৫ জুন, ২০১৫

দাঁড়িপাল্লার ঝাড়ি - ৩২

লিখেছেন দাঁড়িপাল্লা ধমাধম

৯৪.
২০৩০ সাল। ইসলামি শরিয়া মোতাবেক পরিচালিত বাংলাদেশ। সব মেয়ে জেনার দায়ে অভিযুক্ত। টানটান উত্তেজনা। কিন্তু না, পাথর ছুঁড়ে হত্যা করার লোক নেই। চুরির দায়ে আগেই সব হাওয়ার পুতের হাত কাটা গেছে।

৯৫.
- কেয়ামত হবে? 
- হ্যাঁ, হবে। আল্লাহ নিজে বলেছেন এই কথা। 
- যদি কেয়ামত না হয়, তাহলে আল্লাহর কথা মিথ্যা হয়ে যাবে?
- আল্লাহর কথা মিথ্যা হবে না। কেয়ামত হবেই হবে। 
- কেয়ামতের আগে সবাই ইসলাম থেকে দূরে সরে যাবে, অমুসলিম হয়ে যাবে, নাস্তিক হয়ে যাবে? 
- হ্যাঁ, কেয়ামতের অনেকগুলো লক্ষণের মধ্যে ওটাও একটা লক্ষণ। 
- সবাই ইসলাম থেকে দূরে সরে না গেলে, অমুসলিম হয়ে না গেলে, নাস্তিক হয়ে না গেলে কেয়ামত হবে না? 
- না, হবে না। 
- তাহলে আল্লাহর কথা সত্য প্রমাণ করতে হলে সবাইকেই একদিন ঈমান হারিয়ে নাস্তিক-কাফের-নির্ধর্মী হতে হবে? 
- মানে? 
- মানে দুনিয়ার সবাই ঈমান না হারালে তো কেয়ামত হবে না, আল্লাহর কথা সত্য হবে না। 
- হিসাবে তো তা-ই হয়।
- তাহলে আসেন, সবাই ঈমান হারিয়ে নাস্তিক-কাফের-নির্ধর্মী হয়ে যাই এবং আল্লাহর কথার সত্যতা প্রমাণ করি।

৯৬.
হিন্দুধর্ম কোনো ধর্ম নয়, এটা এক সেট রীতিনীতি। 
ইসলাম ধর্ম কোনো ধর্ম নয়, এটা একটি জীবনবিধান। 
এগুলা যদি ধর্মই না হইবে, তাইলে ধর্মানুভূতি আসে কই থিকা? নাস্তিকদের কথায় এই না থাকা ধর্মানুভুতিতে আবার আঘাতই বা লাগে কীভাবে?