২৪ এপ্রিল, ২০১৫

হিন্দুধর্মে ইসলামী সুন্নাহ!

লিখেছেন রিফু

কেমন হত, যদি ইসলাম ধর্মের সুন্নাহর প্রচলন হিন্দুধর্মে থাকতো?

আসুন, জেনে নিই।

শিবের সুন্নাহ:
স্থান-কাল-পাত্র বিচার না করিয়া নারীর স্নান দেখিতে উন্মত্ত হইয়া বিশ্বযুদ্ধ শুরু করিয়া দেওয়া।

কালীর সুন্নাহ:
স্বামীকে পদতলে রাখা। ঐ বিড়াল মারা আরকি।

কৃষ্ণের সুন্নাহ:
১. চুরি করা। বিশেষত মিষ্টি খাদ্যজাত বস্তু।
২. স্নানাগারে মেয়েদের গোসলের সময় উঁকি দেওয়া। (জাকির নায়েক এই থেকে হাসান হোসেনের ভবিষ্যদ্বাণী প্রসব করেছেন হয়তো।)
৩. মামী-চাচীদের দিকে কামুক দৃষ্টি দেওয়া। দেখতে সুন্দর হলে বিছানায় গড়াবেন। (রাধা)
৪. সামর্থ্য থাকলে ষোল হাজার একশত আট, সামর্থ্য না থাকলে হাজার খানেকে থামতে হবে। (মুহাম্মদী ৪ বিবাহ ইজ ওল্ড সুন্নাহ)
৫. টাকা না থাকলে বার ড্যান্সারকে বীর্য পুরষ্কার দেওয়া। (মা পার্বতীকে গণেশের বীজ দেয়।)

কৃষ্ণ ও কামসূত্র সুন্নাহ:
ডগি স্টাইল, গ্রুপ সেক্স, বাটারফ্লাই ইত্যাদি বৈচিত্রপূর্ণ সেক্স স্টাইল।

কামদেব ও কামসূত্র সুন্নাহ:
সেক্স করা। নিয়মিত সেক্স পজিশন পালটানো।

গোমাতার সুন্নাহ:
ঘাস খাওয়া।

হনুমানের সুন্নাহ:
বাঁশ খাওয়া।

গণেশের সুন্নাহ:
ডায়বেটিস বা ওজন নিয়ে মাথা না ঘামিয়ে শুধু খাওয়া।