২ ফেব, ২০১৫

ধর্মীয় প্রশ্নের ব্যাঙগানিক উত্তর - ১৪

[ফেইসবুকে একটা মজাদার পেইজ খোলা হয়েছে "ধর্মীয় প্রশ্নের ব্যাঙগানিক উত্তর" নামে। কেউ একজন একটা মজাদার, বিটকেলে বা আপাত নিরীহ প্রশ্ন করছে, আর অমনি অন্যেরা ঝাঁপিয়ে পড়ে সরবরাহ করছে সেটার বৈচিত্র্যময় ব্যাঙগানিক (ব্যঙ্গ + বৈজ্ঞানিক) উত্তর। 

সেই পেইজ থেকে নির্বাচিত প্রশ্নোত্তরের ধারাবাহিক সংকলন প্রশ্নকারী ও উত্তরদাতাদের নামসহ ধর্মকারীতে প্রকাশ করা হবে নিয়মিত। বলে রাখা প্রয়োজন, এই নির্বাচনটি একান্তভাবেই ধর্মপচারকের পছন্দভিত্তিক। ফলে ভালো কোনও প্রশ্নোত্তর আমার চোখ এড়িয়ে যাবার সম্ভাবনা তো আছেই, তবে সবচেয়ে বেশি আছে অন্যদের সঙ্গে মতভেদের সম্ভাবনা। নিজ গুণে (ভাগে, যোগে, বিয়োগে) মাফ কইরা দিয়েন।]

১৩১.
- নিজের মৃত্যুর পর বিবিদের বিয়ে নিষিদ্ধ করে গেছেন মুহাম্মদ, কেন? (আব্রাহাম রাশেদ)
- মহম্মদের চেয়েও কর্মঠ পুরুষ আছে, এই কথা যাতে ফাঁস না হয়ে যায়.. (আদিম আজরাইল)

১৩২.
- যমের অনেক দুত আছে শুনেছি। আজরাইলের কি অনেক চাকর-বাকর আছে? তা নাহলে একা এত যায়গায় সামাল দিচ্ছে কীভাবে? (বাঙাল মূর্খ চাষা)
- আজকাল মুসলমান জঙ্গিরা আজরাইলের সহযোগী হয়ে কাজ করছে। (আমি সত্যের পথে)

১৩৩.
- বাল মোবারক কেন ও কীভাবে চল্লিশ দিনে নাপাক হয়? মোহাম্মদ কোন ব্যাঙাগানিক পদ্ধতিতে বাল মোবারক কাটিতেন? (কালি ও কলম)
- আসলে মহাবদে চল্লিশ দিন পর তার ঈমান্দণ্ড খুঁজিয়া পাইতো না, তাই এই নিয়ম করা হইছে! (মাহমুদ রেজা)

১৩৪.
- গঙ্গার পাক-পানি ও যমযমের পবিত্র-জলের মধ্যে পার্থক্য কী? (তামান্না ঝুমু)
- পার্থক্য জানি না, তবে মিল হল - খাইলে দুইটা থেকেই কঠিন ডায়রিয়া হতে পারে। (রিফাত উর্মিল)
#
- একটা গোমূত্র, একটা উটমূত্র (ইজ কল্লান)

১৩৫.
- "মাছির এক ডানায় জীবাণু আর প্রতিষেধক অপর ডানায়" - এহেন যুগান্তকারী আবিষ্কারের পরেও মুহাম্মদকে চিকিৎসাবিজ্ঞানে মরণোত্তর নুবেল দেওয়া হলো না কেনো?? (ঔপপত্তিক ঐকপত্য)
-  আসলে এই ব্যাপারে নুবেল কমিটি একমত হইতে ফাইর্তেসে না। নুবেলটা এন্টোমোলজিতে (কীটতত্ব) অবদানের জন্য দেয়া হবে, নাকি চিকিৎসাশাস্ত্রে অবদানের জন্য, নাকি সাহিত্যে, নাকি শান্তিতে, নাকি অর্থনীতিতে। এনশাল্লাহ খুব শিঘ্রই আমরা সুসংবাদ প্রাপ্ত হব। জাঝাকাল্লাহ খয়রান। (অনুসন্ধানী আবাহন)
#
-  হুগুরের নুবেল দরকার নাই, আল্লাহপাক নিজেই হুগুরকে ১৬ খান বিবি, অসংখ্য দাসী, যুদ্ধবন্দিনী আর গনিমতের মালের নুবেল দিয়াই দুনিয়াত পাডাইছে। (আমি সত্যের পথে)

১৩৬.
- আল্লা শব্দের বিপরীত শব্দ কী? (মাসুম রহমান)
- কাণ্ডজ্ঞান। (সেক্যুলার ফ্রাইডে)
#
- আল্লার বিপরীত শব্দ সত্য। (শিজি সেঁজুতি)

১৩৭.
- হিন্দুধর্মের অবতারগুলো সবসময় উচ্চবংশে জন্মায় ক্যান? (প্রনয় বিশ্বাস জয়)
- নিম্নবংশে জন্মালে লোকে অবতার না কইয়া অসুর-রাক্ষস ইত্যাদি কইত। (দাঁড়িপাল্লা ধমাধম)

১৩৮.
- আচ্ছা , মুমিনদের সকলের পাজামা-প্যান্ট খাটো হয় কেন? গোড়ালির উপরে অনেকটা উঠে থাকে কেন? অপচয় কমানোর জন্যে নাকি ওই টুকরো কাপড় আল্লার লজ্জা নিবারণে দান করা হয়? (উদয় দত্ত)
- জোব্বায় অতিরিক্ত কাপড় খরচ করার পরে কাপড়ে টান পড়ে বলে। (অনুসন্ধানী আবাহন)

১৩৯.
- পুছলিম-পুছলিম ভাই-ভাই হৈলেও, পুছলিম-পুছলিম ভাই-বোন কেন নয়? (আৎসুকো আয়ামে)
- কারণ পুছলিম-পুছলিম ভাই-ভাইঝি। যেমন নবী-খাদিজা, আলী-ফাতেমা... (দাঁড়িপাল্লা ধমাধম)

১৪০.
- হিন্দু পুরুষরা ছেলেদের নামের আগে শ্রী লেখে, অবিবাহিত মেয়েরা লেখে কুমারী, বিবাহিতরা নামের শেষে রাণী লেখে। কিন্তু সরস্বতীর নামের আগে শ্রী শ্রী লেখে কেন? (বাঙাল মূর্খ চাষা)
- সম্ভবত, সরস্বতী কুনু আকাম করছিলো। বৈদিক মুরুব্বিরা তাই লিখছিলো - ছিঃ ছিঃ স্বরস্বতী। কালে কালে পরিবর্তিত হয়ে তা এখন শ্রী শ্রী। (অনুসন্ধানী আবাহন)

আগের পর্বগুলো: