সোমবার, ২৩ এপ্রিল, ২০১২

লিংকিন পার্ক - ৪৫


১.
ইহুদি-, খ্রিষ্ট- ও ইসলাম ধর্মের প্রতীকগুলোর চমৎকার বিশ্লেষণ। লক্ষ্য করুন, উল্লেখিত শব্দগুলোর ওপরে মাউস নিয়ে গেলে সেসব নড়েচড়ে ওঠে, আকার পরিবর্তন করে।

২. 
আল্যা-নবীর দেশে নবীর অনুসারীরা এইসব কী করে! 

৩. 
ক্যাথলিক ধর্মযাজকদের শিশুকামিতা (নিশ্চয়ই মোল্লারা এ ব্যাপারে সমধিক দক্ষ, স্রেফ প্রকাশ কম) এবং অপরাধীদের সর্বোতভাবে রক্ষা করার চার্চীয় চেষ্টা এবং প্রয়োজনে অন্য কোনও চার্চে পাঠিয়ে দেয়ার কথা সকলেরই জানা। তেমন একটি সংবাদ। এবং আরও একটি (আড়াই মিনিটের ভিডিও)। অনেকে দাবি করে, ধর্মযাজকদের সেক্স-স্ক্যান্ডাল কমতির দিকে। তাই নাকি? শুধু আমেরিকাতেই ২০১১ সালে এমন ঘটনা ঘটেছে মাত্র সাতশোবার! এবং এটি সরকারী তথ্য। নিশ্চিতভাবেই বলা যায়, অজানা ও অপ্রকাশিত রয়ে গেছে এর চেয়ে ঢের গুণ বেশি ঘটনার কথা। অনেকেই হয়তো জানেন না, ধর্মযাজকদের দ্বারা ধর্ষিতদের অনেকে বেছে নেয় আত্মহননের পথ। 

৪. 
ধর্মযাজক কেন ড্রাগ-চোরাচালানী? অবশ্য টেক্সাস ক্রিশ্চিয়ান ইউনিভার্সিটির ধর্মপ্রাণ ছাত্ররা অবৈধ ড্রাগের বড়োই ভক্ত। দুই মিনিটের ভিডিও দেখুন।

৫. 
শিশুদের খ্রিষ্টান চার্চের প্যাস্টর ও তার স্ত্রী তাদের তিন সন্তানকে প্রহার করে ও অনাহারে রেখেছে দিনের পর দিন। সন্তানদেরকে 'শয়তানের কবল' থেকে মুক্তি দিতে তারা এই বাইবেলীয় পদ্ধতির আশ্রয় নিয়েছিল। ফলাফল? তিন সন্তানেরই মৃত্যু। 

৬.
ব্রাজিলে একটি ধর্মীয় সম্প্রদায় আছে, যারা "পৃথিবীর শুদ্ধিকরণ ও জনসংখ্যা হ্রাস" নীতি প্রচার করে। তো এই সম্প্রদায়ের তিনজন, খুব সম্ভব, জনসংখ্যা হ্রাস করে পৃথিবী শুদ্ধিকরণের লক্ষ্যে মানুষ হত্যা করে তাদের মাংস খেতো, এমনকি প্যাস্ট্রিতে স্টাফিং হিসেবে ব্যবহার করে বিক্রি করতো প্রতিবেশীদের কাছে। দেড় মিনিটের ভিডিও-রিপোর্ট দেখুন।

৭.
প্রার্থনা করে তুচ্ছ যৌনকেশ উৎপাটনও সম্ভব নয় - এই উপলব্ধি কবে যে হবে মানুষের! অথচ অনেক বিশ্বাসী প্রকৃত ও কার্যকরী পথ অবলম্বন করার চেয়ে প্রার্থনাকেই প্রাধান্য দিয়ে থাকে। 'চিকিৎসা অপেক্ষা প্রার্থনা উত্তম' নীতিতে বিশ্বাসী পিতামাতার ষোলো বছরের সন্তান মারা গেছে চিকিৎসার অভাবে। নির্বোধের দল!

৮.
প্রাণ সৃষ্টি ও বিবর্তন নিয়ে নতুন তথ্য জোগাল ‘কৃত্রিম’ ডিএনএ। এবং ধর্মবাজদের কাজ বেড়ে গেল। এখন কোরান ঘেঁটে বের করতে হবে কোন আয়াতে এই কথা আগেই বলা ছিলো, অবশ্যম্ভাবীভাবে আবিষ্কার করতে হবে নানান শব্দের নতুন অর্থ...

৯. 
এক আইরিশ ধর্মযাজক এক অনুষ্ঠানে পাওয়ারপয়েন্ট প্রেজেন্টেশন শুরু করলে পর্দায় ভেসে ওঠে গে পর্নের ছবি  

১০.

১১. 
জ্যোতিষী ও আর ধর্মবাজদের ভেতরে তফাত সেই বড়ো একটা। দু'দলই মানুষের বিশ্বাস নিয়ে খেলা করে। অনুসারীরাও তাদের 'পরামর্শ' মেনে নেয় নিঃশর্তভাবে। এক জ্যোতিষীর পরামর্শে নয় বছরের এক শিশুকে জীবন্ত কবর দিয়েছিল তার পিতামাতা। ঘটনাক্রমে শিশুটি প্রাণে বেঁচে যায়। 

blog comments powered by Disqus