১৯ জুলাই, ২০১১

ড্রাইভারের কী দোষ ?


লিখেছেন হৃদয়াকাশ

কয়েকদিন আগে চট্টগ্রামের মীরসরাইয়ে চালকের অদক্ষতা এবং অসাবধানতায় ট্রাক উল্টে খাদে পড়ায় ৪৪ জন ছাত্র মারা গেছে। যথারীতি ড্রাইভার উধাও। পত্রিকায় খবর বেরিয়েছে, ড্রাইভারের স্ত্রী চালাকি করে স্বামীকে বাঁচানোর জন্য তার ছবি পুড়িয়ে ফেলেছে। এ নিয়ে এটিএন নিউজের সাংবাদিক ঐ মহিলাকে জিজ্ঞেস করলে বলে, ‘তিনি কোনোদিন ছবি তুলেন নাই।’ তারপর সাংবাদিক অ্যাকসিডেন্ট প্রসঙ্গে জিজ্ঞেস করলে বলে, ‘অ্যাকসিডেন্ট কি কেউ ইচ্ছা কইরা করে? আল্লায় চাইছে, তাই হইছে।’ 

হক কথা। 

আমরা জানি, ‘আল্লার হুকুম ছাড়া গাছের একটা পাতাও নড়ে না।’ তাই যদি হয়, তাহলে ঐ ড্রাইভারের স্ত্রী যা বলেছে, তা তো ১০০% সত্যি। আল্লা চেয়েছে তাই অ্যাকসিডেন্ট হয়েছে আর ঐ ছাত্ররা মারা গেছে। এতে ড্রাইভারের কী দোষ? দোষ যদি কিছু থেকে থাকে, তা তো আল্লার। তার হুকুমেই তো সব হয়েছে। কিন্তু কেউ এই ব্যাপারটা বুঝছে না। সবাই দোষ দিচ্ছে ঐ ড্রাইভারকে আর তার মোবাইল ফোনে কথা বলাকে। কিন্তু এটা কি ঠিক হচ্ছে? আল্লা যা চেয়েছে তাই তো হয়েছে, আর সেভাবেই হয়েছে। এতে সন্তানহারা পিতা-মাতারা কান্না কাটি করছে কেন? এটা কি আল্লার বিরুদ্ধে যাচ্ছে না? 

একটা কথা বুঝতে কষ্ট হচ্ছে, যে মহান সত্য (ধর্মীয়) একজন সামান্য মহিলা বুঝতে পারলো, তা সবাই বুঝতে পারছে না কেন? কেন সবাই ড্রাইভারকে দোষারোপ করছে? তিনি তো ঘটনা ঘটাননি। তিনি উপলক্ষ মাত্র। যা ঘটান, তা তো আল্লা-ই। এটা ধার্মিকদের মাথায় ঢুকছে না কেন? আল্লার ইচ্ছার বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে তারা কি আল্লাকে অসন্তুষ্ট করছে না? এরা নাস্তিক না আস্তিক? আমরা নাস্তিক বলে সবাই আমাদের দোষ দেয়, গালমন্দ করে। কিন্তু তারা যে আল্লার বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে আজ নাস্তিকের মতো আচরণ করছে তাতে তাদের কোনো মাথাব্যাথা নেই, এ নিয়ে তাদেরকে কেউ দোষও দিচ্ছে না। 

খারাপ কিছু ঘটলেই যত দোষ অবিশ্বাসী তথা নাস্তিকদের। তাই নাস্তিকদের কল্লা কাটার জন্য ইসলামীরা সব সময় চাপাতিতে শান দেয়, তাদের হত্যা করে; না পারলে দেশ থেকে তাড়ায়। কিন্তু এই ব্যাপারটাও ধার্মিকরা বোঝে না যে, যারা নাস্তিক হয় তারাও তো হয় আল্লারই ইচ্ছায়। কারণ, আল্লার ইচ্ছা ছাড়া তো গাছের একটা পাতাও নড়ে না। তাহলে শুধু শুধু খারাপ কাজের জন্য মানুষকে দোষ দিয়ে লাভ কী? আমি যদি কাউকে ধর্ষণ করি, সেটা আল্লার ইচ্ছায়; কাউকে খুন করলে সেটাও আল্লার ইচ্ছায়। আমার কোনো দোষ নেই। কারণ আমি আল্লার সৃষ্ট জীব হিসেবে তার ইচ্ছার বাইরে কিছু করছি না; আমার কিছু করার ক্ষমতা নেই। 

এই যে আমি আজ আল্লার সমালোচনা করছি, সেটাও আল্লার ইচ্ছায়। কী বলেন আপনারা? তাহলে ঐ ড্রাইভারকে পুলিশ খুঁজছে কেন? আল্লার ইচ্ছার বাস্তবায়ন করতে গিয়ে সে আজ সমাজের কাছে আপরাধী। তাকে লুকিয়ে থাকতে হচ্ছে, পালিয়ে থাকতে হচ্ছে। কী দোষ তার? কেন আল্লা মানুষকে নিয়ে এরকম নোংরা খেলা খেলছে? এই অধিকার তাকে কে দিয়েছে? কে তাকে বলেছে পৃথিবীতে মানুষ সৃষ্টি করে তাদের দুঃখ কষ্টে ফেলতে? কে? কে? কে? 

পুনশ্চ: আল্লার খামখেয়ালি ও স্বেচ্ছাচরিতার বলি সেই ৪৪ জন ছাত্রের অকাল মৃত্যুতে আমরা গভীরভাবে শোকাহত।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন