২৩ ফেব্রুয়ারী, ২০১০

ইসলামী ইতরামি: তোরা মুসলমান হবি না মানে!


শান্তির ধর্ম ইসলাম অশান্তি এড়াতে ভিন্নধর্মী বা অবিশ্বাসীদের সহজ উপায়ে দ্বীনের পথে আনতে সমর্থ না হলে স্রেফ হত্যা করে ঝামেলা চুকিয়ে ফেলে! তাদের বাঁচিয়ে রেখে অনর্থক অশান্তি বাড়ানোর কী দরকার! স্বয়ং নবীই তো পথপ্রদর্শক! যুদ্ধ করে, মৃত্যুর ভয় দেখিয়ে অন্যদের মুসলমান বানিয়ে নিজের বেহেশত-পোক্ত-করার পদ্ধতি শিখিয়েছেন তিনিই তো! একটি "শিক্ষামূলক" ভিডিওও দিয়েছিলাম এক পোস্টে। 

সাম্প্রতিকতম খবর শুনুন। শান্তির ধর্ম গ্রহণে অস্বীকৃতি জানিয়েছিল বলে তিন শিখ তরুণের শিরোচ্ছেদ করেছে তালিবানের শান্তিপ্রিয় জঙ্গিরা। জঙ্গিদের কী দোষ! তারা অর্বাচীন তরুণদের সত্যের পথে আনতে চেয়েছিল। কিন্তু মূঢ় তরুণেরা বিপথত্যাগী হতে না চাইলে আর কোনও বিকল্প তো থাকে না! ঘটনা ঘটেছে পাকিস্তানে। বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন। 

এবারের ঘটনাও পাকিস্তানে। চার মুসলমান পিটিয়েছে এক খ্রিষ্টান যুবককে। কারণ একই: যুবকটি ইসলাম ধর্ম গ্রহণে সম্মত হয়নি। আমার ধারণা, সেই চার মুসলমানের ঈমানের জোর কম। ঈমান পোক্ত হলে তারা শুধু পিটিয়েই ক্ষান্ত হতো না। বিস্তারিত পড়ুন

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন